অনলাইন জন্ম নিবন্ধন চেক করার নিয়ম। online bris check bd 2022

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন চেক করার নিয়ম জানতে সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন। 

আপনার জন্ম নিবন্ধন কপিটি অনলাইন করা হয়েছে কি না তা জানতে চাচ্ছেন? 

খুব সহজেই আপনার হাতে থাকা স্মার্ট ফোনের মাধ্যমে জানতে পারবেন আপনার জন্ম নিবন্ধন কপিটি অনলাইনে রেজিষ্ট্রেশন করা হয়েছে কি না। 

আপনি যদি Online bris check bd live অথবা জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড 2022 সম্পর্কে না জেনে থাকেন, তাহলে আজকের এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য।

আসলে আমাদের মধ্যে অনেকেই মনে করে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন চেক করা অনেক কঠিন। 

কিন্তু সত্যি বলতে খুবই সহজ। এর জন্য আপনাকে জন্ম নিবন্ধন নাম্বার এবং জন্মতারিখ জানতে হবে। আর তাহলেই জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারবেন।

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন চেক করার নিয়ম। জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি bangladesh। জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড ২০২২

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন চেক করার নিয়ম। online bris check bd


আর এজন্য প্রথমে আপনার মোবাইলে গুগলে গিয়ে সার্চ করুন bris check bd.com লিখে।

সার্চ দেওয়ার পর আপনার মোবাইলে "জন্ম নিবন্ধন তথ্য অনুসন্ধান করুন" এরকম নামে একটা ওয়েবসাইট প্রদর্শীত হবে। আপনি উক্ত ওয়েবসাইটটিতে প্রবেশ করুন।

উল্লেখ্য বিষয় হলো, উক্ত ওয়েবসাইটটিতে Webpage Not Available এরকম তথ্য প্রদর্শিত হতে পারে। 

আপনার দুর্বল নেট বা অন্য যে কোনো কারণেই এ সমস্যা দেখা দিতে পারে।

আপনি উক্ত ওয়েবসাইট ছাড়াও আরেকটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন রেজিষ্ট্রেশন  করা হয়েছে কি না জানতে পারবেন।

সেই ওয়েবসাইটটির নাম হলো Birth and Death Verification. আপনি যখন bris check bd.com লিখে সার্চ করবেন। 

তখন "জন্ম নিবন্ধন তথ্য অনুসন্ধান করুন" এই ওয়েবসাইটটির উপরে Birth and Death Verification ওয়েবসাইটটি দেখা যাবে। 

একটা ওয়েবসাইটের সার্ভারে সমস্যার কারণে তথ্য প্রদর্শিত না হলে আপনি আরেকটা দিয়ে আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি দেখতে পারবেন। 

যদি Birth and Death Verification এ ওয়েবসাইটটির মাধ্যমে দেখতে চান, তাহলে এই ওয়েবসাইটটিতে প্রবেশ করার জন্য এতে ক্লিক করুন।  

এই ওয়েবসাইটটিতে প্রবেশ করার পর বাম পাশে জন্ম নিবন্ধন যাচাই ফর্ম থাকবে এবং ডান পাশে লিখা থাকবে Click here to verify death record.

তাই ওয়েবসাইটটিতে প্রবেশ করার পর আপনাকে বাছাই করে নিতে হবে আপনি জন্ম নিবন্ধন নাকি মৃত্যু সনদ দেখতে চান।

যদি আপনাকে  অনলাইন মৃত্যু সনদের কপি দেখানোর জন্য 

  • Death Registration Number
  • Date of Death 

এরকম তথ্য চায় তাহলে আপনি ডান পাশে একটা অপশন দেখতে পাবেন এরকমঃ  

Click here to verify birth record. এই অপশনটিতে ক্লিক করার পর আপনার কাছে এরকম কিছু তথ্য চাওয়া হবে। 

যাইহোক আমরা যেহুতু জন্ম নিবন্ধন চেক করব তাই বাম পাশে জন্ম নিবন্ধন যাচাই ফরম দেখবো।   

  • Birth Registration Number (এখানে আপনার জন্ম নিবন্ধনের ১৭ অঙ্কের সংখ্যাটি লিখুন)
  • জন্ম নিবন্ধন যাচাই yyyy mm dd

এখানে আপনার জন্ম তারিখটি লিখতে বলা হয়েছে। প্রথমে জন্মসাল তারপর মাস ও অবশেষে তারিখ সিরিয়ালি লিখুন।

তারপর আপনাকে একটা গাণিতিক সমস্যা সমাধান করতে বলা হবে। 

The answer is....

এই অপশনটিতে গাণিতিক সমস্যার সমাধানটি লিখে দিবেন। সবগুলো তথ্য পূরণ করার পর নিচে

Search  বা Verify এর মধ্যে যে কোনো একটি অপশন পাবেন ও তাতে ক্লিক করে দিবেন।

এবার আপনার জন্ম নিবন্ধনটি যদিই অনলাইনে রেজিষ্ট্রেশন করা হয়ে থাকে, তাহলে তা নিম্নোক্ত তথ্যগুলো প্রদর্শন করবেঃ

নামঃ জাকারিয়া

মাতার নামঃ জাহারা বেগম 

মাতার জাতীয়তাঃ বাংলাদেশী

পিতার নামঃ ইকবাল 

পিতার জাতীয়তাঃ বাংলাদেশী 

জন্মস্থান ঃ দেবিদ্বার, কুমিল্লা। 

এখানে নাম অপশনটিতে আপনার নাম ও আপনার  বাকি তথ্যগুলোও এভাবে দেয়া থাকবে।

উক্ত তথ্যগুলো বাংলা অথবা ইংরেজি বা উভয়ভাবেই প্রদর্শিত হতে পারে। 

আশা করি এই প্যারাতে অনলাইন জন্ম নিবন্ধন চেক করার নিয়ম সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

আরো পড়নঃ বাটন ফোনের লক খোলার উপায় ২০২২

ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই। জন্ম নিবন্ধন অনলাইন চেক করার নিয়ম।জন্ম নিবন্ধন যাচাই yyyy mm dd

আশাকরি উপরের নিয়ম অনুযায়ী ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই করতে পেরেছেন।

https://everify.bdris.gov.bd/ এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই করতে সক্ষম হবেন। 
তাই "kivabe jonmo nibondhon online korbo"  এই কী-ওয়ার্ডটি লিখে গুগলে কষ্ট করে সার্চ করতে হবে না। 
নিম্নে "জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড ২০২২" সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড। জন্ম নিবন্ধন সনদ ডাউনলোড pdf

ইতিপূর্বেই অনলাইন জন্ম নিবন্ধন চেক কিভাবে করতে হয় তা জানতে পেরেছেন। 

এখন প্রশ্ন হচ্ছে আমরা কিভাবে তা ডাউনলোড করব? জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড করার জন্য আপনি প্রথমে https://everify.bdris.gov.bd/ এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন। 

তারপর জন্ম নিবন্ধন নাম্বার এবং জন্মতারিখ বসিয়ে সার্চ বাটনে ক্লিক করলে আপনার সামনে যাবতীয় তথ্য প্রদর্শিত হবে। 

তবে যদি তা ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদ হয়ে থাকে। এখন এই পেইজে আসার পর কিবোর্ডের (Ctrl+P) চাপ দিয়ে এর হার্ডকপিটি প্রিন্ট করুন। 

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন কপি ডাউনলোড করার এটাই একমাত্র নিয়ম। ভবিষ্যতে অন্য কোন নিয়ম যোগ হলে অবশ্যই আপনাদের জানিয়ে দিব।

ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই ওয়েবসাইটে যে সকল তথ্য পাবেন

যখন জন্ম নিবন্ধন নাম্বার এবং জন্ম তারিখ দিয়ে আপনার ডিজিটাল সনদ যাচাই করবেন, তখন আপনার সামনে একটি পেইজ আসবে। 

সেখানে Birth Registration Record Verification এর তথ্যগুলো পাবেন। 
  1. প্রথমে আপনি দেখতে পাবেন আপনার জন্ম নিবন্ধন কত সালে রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছিল। 
  2. তারপর রেজিস্ট্রেশন অফিস কোথায় ছিল তাও দেখতে পাবেন। 
  3. এখন দেখতে পাবেন Date of birth, Birth registration number। একটি অপশন থাকবে আপনি পুরুষ নাকি মহিলা। 
  4. এর নিচে বাংলাতে আরো কিছু তথ্য লেখা থাকবে। 
  5. এগুলো হলো নিবন্ধিত ব্যক্তির নাম, জন্মস্থান, মাতার নাম, মাতার জাতীয়তা, পিতার নাম, পিতার জাতীয়তা। 
উপরে দেওয়া তথ্যগুলো আপনি জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই ওয়েবসাইটে দেখতে পাবেন। 

নাম দিয়ে জন্ম নিবন্ধন চেক। নাম দিয়ে জন্ম নিবন্ধন অনুসন্ধান

আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে ভুলবশত জন্ম নিবন্ধন হারিয়ে ফেলি। বিশেষ করে আমিও একবার জন্ম নিবন্ধন হারিয়ে ফেলে ছিলাম। 

তখন আমার বাবা ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে আমার নাম দিয়ে জন্ম নিবন্ধন এনে দিয়েছিল। 

তবে একটি জিনিস মনে রাখবেন অনলাইনে নাম দিয়ে জন্ম নিবন্ধন চেক করার কোনো সুযোগ নেই। 

এর জন্য আপনাকেই নিকটস্থ ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা অথবা সিটি কর্পোরেশনে গিয়ে জন্ম নিবন্ধন চেক করতে হবে। আশা করি বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন।

নাম ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই। জন্ম নিবন্ধন অনলাইন চেক apps

অনেকেই গুগলের সার্চ করে থাকেন নাম ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করা যায় কিনা? 

এর উত্তর হলো যাচাই করা যায় না। তবে জন্ম তারিখ এবং জন্ম নিবন্ধন নাম্বার দিয়ে ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই করা যায়। 

তাই জন্ম নিবন্ধন অনলাইন চেক করার জন্য এই ওয়েবসাইটে ( Copy the URL: https://everify.bdris.gov.bd/) প্রবেশ করুন।এখন আসুন ১৬ ডিজিটের কিভাবে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করবেন। 

আসলে ১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন যাচাই করা কখনও সম্ভব নয়। এর জন্য আপনাকে ১৭ ডিজিট বানাতে হবে। এখন প্রশ্ন হলো কিভাবে বানাবেন? 

এর জন্য জন্ম নিবন্ধনের শেষ পাঁচটি জিদের পূর্বে 0 প্রধান করে ১৭ ডিজিট তৈরি করতে হয়। আসলে পূর্বের জন্ম নিবন্ধন নাম্বার গুলো ১৩ অথবা 16 ডিজিটের হত। 

কিন্তু বর্তমানে আমাদের সরকার জন্ম নিবন্ধনগুলো অনলাইন ভিত্তিক করায় তা ১৭ ডিজিটের হয়ে গিয়েছে। 

তাই আপনার যদি ১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন নাম্বার থাকে, এখন দেরি না করে নিকটস্থ কোনো দোকানে গিয়ে আপডেট জন্ম নিবন্ধন সনদ নিয়ে আসুন। 

যাইহোক এই ১৭ ডিজিট তৈরি করার পরে উপরে দেওয়া ওয়েবসাইটের লিংকে প্রবেশ করে জন্ম নিবন্ধন নাম্বার এবং জন্ম তারিখ দিয়ে সার্চ বাটনে ক্লিক করলেই আপনার সামনে যাবতীয় তথ্য প্রদর্শিত হবে। 

অনেকে আবার এটাও জিজ্ঞাসা করে থাকে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন চেক apps আছে কিনা? এর উওর হলো তাদের apps তথা ওয়েবসাইট হলো https://everify.bdris.gov.bd/। 

আশা করি অনলাইন জন্ম নিবন্ধন চেক করার নিয়ম সহ জন্ম নিবন্ধন যাচাই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। 

একজন বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে আমাদের প্রত্যেকের উচিত অনলাইন জন্ম নিবন্ধন চেক করা। নতুন নতুন আপডেট পেতে আমাদের ওয়েবসাইট Techtips1 এর সাথে যুক্ত থাকুন। 

আপনাদের সুবিধার্থে নিচে একটি ভিডিও দেওয়া হলো। এবং আমাদের Google News টি অনুসরণ করুন। 




Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url